বাবা ধারের টাকা দিতে না পারায় কিশোরীকে দেড় মাস আটকে রেখে গণধর্ষণ!

কিশোরীর বাবার কাছে পূর্বপরিচিত এক ব্যক্তি ধারের টাকা পান। টাকা দিতে না পারায় ওই কিশোরীকে তুলে নিয়ে দেড় মাস আটকে রেখে গণধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণের ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

র‌্যাব সূত্র জানায়, ওই কিশোরীর (১৫) বাবা কক্সবাজার সদর এলাকায় অটোরিকশা চালান। পূর্বপরিচিত এক ব্যক্তি তার কাছে ৩৫ হাজার টাকা পান।

কিন্তু এ টাকা তিনি দিতে পারছিলেন না। এ কারণে মেয়েকে জোর করে তুলে নিয়ে দেড় মাস আটকে রেখে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

মেয়েটির মা বিষয়টি র‍্যাবকে জানালে শুক্রবার কক্সবাজার থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে র‍্যাব-৭।

গ্রেপ্তার করা হয় এ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মো. শাহাবুদ্দিনসহ (২৮), আরমান হোসেন (২৭), নুরুল আলম (৩৮) ও লোকমান হাকিমকে (৩৪)।

তারা সবাই ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেছেন বলে জানায় র‍্যাব।

তাদের সবার বাড়ি কক্সবাজার সদরে। অভিযান পরিচালনাকারী র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক মাশকুর রহমান বলেন, গত ১ সেপ্টেম্বর মেয়েটিকে তুলে নিয়ে যান শাহাবুদ্দিন।

পরে তাকে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *